Home | সারাদেশ | মোবাইলে প্রেম করে দেখা করতে এসে প্রেমিকার সর্বনাশ

মোবাইলে প্রেম করে দেখা করতে এসে প্রেমিকার সর্বনাশ

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় মোবাইলে প্রেমের সূত্রে প্রেমিক শফিকের সঙ্গে দেখা করতে এসে ধষর্ণের শিকার হয়েছেন স্বামী পরিত্যক্তা এক গার্মেন্টস কর্মী। এ ঘটনায় এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।
গত সোমবার (১১ ডিসেম্বর) মুক্তাগাছা উপজেলার কালিকা পুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় মুক্তাগাছা থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।
নির্যাতিত গার্মেন্টস কর্মী টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজলোর জটাবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা। শফিক মুক্তাগাছা উপজেলার জামগড়া গ্রামে আজাহারের ছেলে। সাহেব আলী একই এলাকার বাসিন্দা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মুক্তাগাছা থানা পুলিশের ওসি আলী আহাম্মদ বলেন, প্রেমিক শফিকের সঙ্গে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে ওই গার্মেন্টস কর্মীর। প্রেমের টানে শফিকের বাড়িতে বেড়াতে আসে গার্মেন্টস কর্মী। ঘুরতে যাওয়ার কথা বলে মেয়েটিকে সন্ধ্যায় পাশের কালিকাপুর এলাকায় নিয়ে যায় শফিক। সেখানে রাত গভীর হলে শফিক ও তার বন্ধু সাহেব আলী ওই মেয়েকে ধর্ষণ করেন।
ওই নারীর চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করে। এ সময় শফিক ও তার বন্ধুকে আটক করে স্থানীয়রা। তবে তারা কৌশলে পালিয়ে যায়।
গত সোমবার (১১ ডিসেম্বর) রাতে ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি।
এএম/আরআইপি

Comments

comments

About admin

Check Also

নিজ বাড়িতে কম্বলের ভেতর গলাকাটা লাশের পচা গন্ধ!

নীলফামারী সদর উপজেলার বিহারীপাড়া গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে কম্বল মোড়ানো অর্ধগলিত জাহেদুল ইসলাম (৪৫) নামে এক ব্যক্তির গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত জাহেদুল ওই গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে। এলাকাবাসী জানায়, জাহিদুল এলাকায় সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তিনি একটি মামলায় দীর্ঘদিন কারাগারে থাকার পর সম্প্রতি জামিনে বের হয়ে আসেন। বুধব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *